• রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১১:০৪ পূর্বাহ্ন

প্রধানমন্ত্রী দিলো জায়গা-ঘর ‘ক্লিন সিরাজগঞ্জ গ্রীন সিরাজগঞ্জ’ দিলো পরিবেশ বন্ধু গাছ”

স্বাধীন ভোর ডেস্ক / ৯৩ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশের সময় শনিবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২৩

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:
সিরাজগঞ্জের সুপরিচিত পরিবেশবাদী স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন “ক্লিন সিরাজগঞ্জ গ্রীন সিরাজগঞ্জ” এর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হলো বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি। খোকশাবাড়ি পুর্নবাসনে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ৩১০ টি ঘরের সদস্যদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে ফলজ বৃক্ষ। উদ্দেশ্য সমগ্র পূর্নবাসন সবুজায়ন করা। উল্লেখ্য গত জুন মাস থেকে চলা এই কর্মসূচির মাধ্যমে সিরাজগঞ্জ জেলার বিভিন্ন স্থান এবং প্রতিষ্ঠানে ইতিমধ্যে ২০ হাজারের বেশী বৃক্ষরোপণ করা হয়েছে। সংগঠনটি জন্মলগ্ন থেকে এযাবৎকালে প্রায় ৫০ হাজার বৃক্ষরোপণ করেছে বলে জানায়। সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা আশিক আহমেদ।
তিনি আরো বলেন – আমরা পরিবেশবাদী স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন হলেও আমরা লক্ষ্য রাখি সমাজের প্রতিটি সামাজিক বিষয়ে। তবে জলবায়ু পরিবর্তন এখন যেহেতু মহামারী আকার ধারন করার উপক্রম তাই জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় আমাদের চলে অর্ধবছর ব্যাপী বৃক্ষরোপণ ও সচেতনতামুলক কার্যক্রম। এছাড়াও দেশের যেকোন দুর্যোগ দুর্বিপাকে আমরা সর্বোচ্চ স্বেচ্ছাশ্রম দিয়ে কাজ করে থাকি।সবুজায়নের লক্ষ্যে আয়োজন করা এই বৃক্ষরোপণ উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ আনোয়ার সাদাত এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ একরামুল হক, সদস্য, জেলা পরিষদ, সিরাজগঞ্জ।কৃষিবিদ মোঃ আনোয়ার সাদাত বলেন – জলবায়ু পরিবর্তন রোধে “ক্লিন সিরাজগঞ্জ গ্রীন সিরাজগঞ্জ” এর প্রতিটি কার্যক্রম প্রশংসনীয়। আমি এর আগেও এই সংগঠনের একাধিক কর্মসূচিতে গিয়েছিলাম। আমার ভালো দেগেছে এই দেখে যে, অনেক উদ্যমী তরুণ এই সংগঠনে আছে যারা চাইলে পুরো বাংলাদেশ কে সবুজায়ন করার মানসিকতা রাখে। আমি ধন্যবাদ জানাই তাদের এবং প্রত্যাশা রাখি এই সবুজ আন্দোলন যুগের পর যুগ চলমান থাকবে।মোঃ একরামুল হক বলেন, ক্ষুদ্র পরিসরে হলেও “ক্লিন সিরাজগঞ্জ গ্রীন সিরাজগঞ্জ” যেসকল সামাজিক কাজ করে যাচ্ছে তা সত্যিই আমাদের জন্য খুবই প্রয়োজন। আমরা অনেক সংগঠনকে দেখি যারা নামের জন্য কাজ করে কিন্তু এই সংগঠনটি শুরু থেকেই কাজের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। সমাজের বিত্তবানদের অনুরোধ করবো আপনারাও এদের সাথে থাকুন, সহযোগিতার হাত বাড়াবেন।সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবক মেহেদি জামান বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন এবং সামাজিক উন্নয়নে আমরা যে সকল স্বেচ্ছাসেবী মুলক কাজ করে থাকি তার অন্যতম হলো বৃক্ষরোপণ অভিযান এবং পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম। আমরা আগামী ২৯ তারিখ হতে সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী সপ্তাহব্যাপী “ডেঙ্গু প্রতিরোধী সপ্তাহ” পালন করবো। সেখানে আমাদের ৩০/৪০ জন স্বেচ্ছাসেবক ৭ দিনব্যাপী স্বেচ্ছায় পরিচ্ছন্নতার কাজ করবে। আপনারাও আমন্ত্রিত।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ