স্মৃতিতে জামালপুর জেলার প্রথম মন্ত্রী মরহুম গিয়াসউদ্দিন আহমেদ

স্বাধীন ভোর ডেস্ক / ৮৬২ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশের সময় শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০২৩

হাফিজুর রহমান, সরিষাবাড়ি (জামালপুর) প্রতিনিধি

আজকের প্রজন্ম প্রায় ভুলেই যেতে বসেছে জামালপুরের কৃতি সন্তান তৎকালীন খাদ্যমন্ত্রী মরহুম গিয়াস উদ্দিন আহমেদকে। তিনি ১৯৫৪ সালে যুক্তফ্রন্টের মনোনয়নে জামালপুরের মেলান্দহ-মাদারগঞ্জ আসন হতে নির্বাচিত এম এল.এ. এবং তৎকালীন খাদ্যমন্ত্রী মরহুম গিয়াসউদ্দিন আহমেদ।গিয়াসউদ্দিন আহমদ ১৮৮৯ সালে মাদারগঞ্জ উপজেলার সিধুলী ইউনিয়নের চর নান্দিনা গ্রামে জন্মগ্রহন করেন । ১৯২১ সনে অসহযোগ ও খেলাফত আন্দোলনে যোগ দিয়ে প্রেসিডেন্সী কলেজ ত্যাগ করে প্রথম কারাবরন করেন । জেলের ভিতর বিপ্লবীদের সংস্পর্শে এসে যুগান্তর দলে যোগ দেন । জেল মুক্ত হয়ে জামালপুরে এসে শক্তিশালি কংগ্রেস সংগঠন গড়ে তুলেন।তখন জামালপুর সদর, মেলান্দহ, মাদারগঞ্জ ও সরিষাবাড়ী থানা নিয়ে ছিলো একটি আসন। ১৯৩৫ সাল থেকে এই আসনে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন শের-ই-বাংলা একে ফজলুল হকের সহকর্মী মাদারগঞ্জের কৃতী সন্তান মরহুম গিয়াসউদ্দিন আহমেদ। গিয়াসউদ্দিন আহমেদ ১৯৫৪ সালে যুক্তফ্রন্টের মনোনয়নে মেলান্দহ-মাদারগঞ্জ আসন থেকে এম এল.এ. নির্বাচিত হয়ে খাদ্যমন্ত্রী পদে নিয়োজিত হন । তিনিই জামালপুর জেলার সর্ব প্রথম মন্ত্রী সভার সদস্য। চর নান্দিনায় বিপ্লবী গিয়াসউদ্দিন আহমদের বাড়িটিতে স্বদেশী আন্দোলনের বহু নেতা কর্মি আত্মগোপনে থেকেছেন । পরিবারের সদস্যরা বাড়িতে না থাকার কারনে ঐতিহাসিক বাড়িটি আজ পরিত্যক্ত অবস্হায় পড়ে আছে । আজকের প্রজন্ম প্রায় ভুলেই যেতে বসেছে জামালপুরের কৃতি সন্তান গিয়াসউদ্দিন আহমদকে ।গিয়াসউদ্দিন আহমদ এর সমাধিস্থল জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ি উপজেলার পাখাডুবি এলাকায় ।বিনম্র শ্রদ্ধা ও অতল ভালোবাসা রইলো জামালপুরের এ কৃতিসন্তানের প্রতি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ