বড়াইগ্রাম উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ বোরহান উদ্দিন মিঠুর স্মার্ট ভূমি সেবায় মুগ্ধ সবাই

স্বাধীন ভোর ডেস্ক / ১১৫ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশের সময় রবিবার, ৯ জুলাই, ২০২৩

মোঃ সৈকত হোসেন
নাটোর জেলা প্রতিনিধি:

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলা ভূমি অফিস শতভাগ ডিজিটাল ভূমি সেবার মাধ্যমে ভূমি সেবা প্রদান করে যাচ্ছে। ‘স্মার্ট ভূমি সেবায় ভূমি মন্ত্রণালয়’ এ প্রতিপাদ্য নিয়ে নাটোরে বড়াইগ্রাম উপজেলা ডিজিটাল ভূমি সেবা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। আর এতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ বোরহান উদ্দিন মিঠু। তার দক্ষ নেতৃত্বে বড়াইগ্রাম উপজেলায় ভূমি সেবা এই সফলতা অর্জন করেছে। ভূমি সেবায় বড়াইগ্রাম এখন দেশের মডেল উপজেলা হিসেবে স্বীকৃতি পাবার দাবিদার হয়ে উঠেছে । সহজে ভূমি সেবা পেয়ে উপজেলা বাসীর মাঝে মুগ্ধতা ছড়িয়েছে । জানা গেছে, মো.বোরহান উদ্দিন মিঠু গত ৯ জুন ২০২২ সাল থেকে বড়াইগ্রাম উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন । তিনি এই সময়ে বড়াইগ্রাম উপজেলার সরকারি খাস জমি উদ্ধার, অবৈধ স্হাপনা উচ্ছেদ, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্পে বসবাসরত উপকারভোগীদের সার্বিক খোঁজ খবর রাখা, মিসকেসে (নামজারি জমাভাগ খারিজ সংক্রান্ত) মামলার শুনানির মাধ্যমে দ্রুত মামলার নিষ্পত্তি, ভূমি নিয়ে স্থানীয় বিরোধের অবসান, স্বচ্ছতার সাথে ভূমি সেবা প্রদান, সেবা সহজীকরণ, সরকারি রাজস্ব আদায় বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখা, ই-নামজারি, অনলাইন ভূমি উন্নয়ন কর, অনলাইন শুনানি, খতিয়ানের করণিক ভুল সংশোধন, ভূমি উন্নয়ন কর নির্ধারণীর আপত্তি-নিষ্পত্তি, গণশুনানি, মিউটেশন (ই নামজারী) তে সফলতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। এছাড়াও অনলাইনে খারিজ খতিয়ানের ডাটাবেজ প্রস্তুতকরণ কার্যক্রমসহ ভূমি নিয়ে জটিলতা নিরসনসহ আরো অনেক সেবাদান কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। এসবের বাইরেও বিভিন্ন প্রশাসনিক কার্যক্রম যেমন ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ভেজালবিরোধী অভিযান, ফসলি জমি রক্ষা, পরিবেশ রক্ষায় অভিযান, বাল্যবিবাহ ও ইভটিজিং প্রতিরোধ , মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান, নিয়মিত ইউনিয়ন ভূমি অফিস পরির্দশন করে বড়াইগ্রাম উপজেলার সরকারের একজন দক্ষ ও প্রশংসনীয় কর্মকর্তার দাবিদার হয়েছেন তিনি । লোকবল সংকটের মধ্যেও এসি ল্যান্ড মোঃ বোরহান উদ্দিন মিঠু দক্ষতার সাথে কাজ করে ভূমি উন্নয়ন ও জটিলতাসহ সব ধরনের সমস্যা নিরসনে কাজ করে যাচ্ছেন । বড়াইগ্রাম উপজেলার ভূমি সেবা গ্রহীতারা জানান উনার সততা,ন্যায় নীতি ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বের কারণে এখন ১৫-২০ দিনেই নামজারি করা যাচ্ছে যেখানে আগে নামজারি করতে সময় লাগতো ২ থেকে ৩ মাস পর্যন্ত। মানুষের ভূমি সেবা সম্পর্কিত ভোগান্তি কমাতে তিনি বদ্ধ পরিকর।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ