• শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ০২:০৪ পূর্বাহ্ন

অবৈধ ইটভাটায় অভিযান, ১২ ইটভাটা বন্ধ, জরিমানা ১০লাখ ৫হাজার টাকা

স্বাধীন ভোর ডেস্ক / ৭৪ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশের সময় বুধবার, ১৩ মার্চ, ২০২৪
???????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????

অরবিন্দ পোদ্দার , নলছিটি

ঝালকাঠির নলছিটিতে প্রশাসনের অভিযানে ১২ ইটভাটা বন্ধ, জরিমানা করা হয়েছে ১০লাখ ৫হাজার টাকা। নলছিটিতে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা অবৈধ ইটভাটায় দিনভর অভিযান পরিচালনা করেছে প্রশাসন। ভ্রাম্যমান আদালতের ৫টি টিম সকাল থেকে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গড়ে উঠা অবৈধ ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানের সময় প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় ইটভাটাগুলোকে ১০লাখ ৫হাজার টাকা জরিমানাসহ ১২টি ইটভাটা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। কুলকাঠি ইউনিয়নের কেটিসি ইটভাটায় ০২লাখ জরিমানা করা হয়। তারা জরিমানার টাকা দিতে ব্যর্থ হলে ওই ইটভাটার ম্যানেজার লোকমান হাওলাদারকে ৩ মাসের জেল প্রদান করে ভ্রাম্যমান আদালত। লোকমান হাওলাদার ঝালকাঠির সদর উপজেলার কাসেম আলী হাওলাদার ছেলে। ১৩মার্চ বুধবার দিনভর চলা এ অভিযানের নেতৃত্ব দেন নলছিটির উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নজরুল ইসলাম। তার সাথে ছিলেন নলছিটি থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মুরাদ আলী। দন্ডপ্রাপ্ত ইটভাটার মধ্যে রয়েছে পৌর এলাকায় এমএমবি ব্রিকসকে (বৈধ কাগজপত্র না থাকায়) ৩ লাখ টাকা জরিমানা ও বন্ধ ঘোষনা, এমএমআর ব্রিকসকে একই কারনে ০১লাখ ৭০হাজার টাকা জরিমানা ও বন্ধ ঘোষনা, মুন ব্রিকসকে ০২লাখ ২০হাজার টাকা জরিমানা ও বন্ধ ঘোষন, কুশঙ্গল ইউনিয়নের মানপাশার মেসার্স বাপ্পি সরদার ব্রিকসকে ৫০হাজার টাকা জরিমানা, ওই এলাকার থ্রি স্টার ব্রিকসকে ০১লাখ জরিমানা করে ড্রাম চিমনি ভেঙে ফেলা হয়েছে, দপদপিয়া ইউনিয়নের নুর ব্রিকস কে ০১লাখ টাকা, ফোর ষ্টার ব্রিকসকে ৫০হাজার টাকা, তিন ষ্টার ব্রিকসকে ১৫হাজার টাকা জরিমানা ও বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। এছাড়াও দপদপিয়া ইউনিয়নের হাওলাদার ব্রিকসসহ আরও কয়েকটি ইটভাটার ড্রাম চিমনি দিয়ে পরিচালিত ব্রিকস এর চুলা পানি দিয়ে নিভিয়ে দেয়া হয়েছে এবং চিমনি ভেঙে ব্রিকস বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। নলছিটি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নজরুল ইসলাম জানান, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকা সহ বিভিন্ন অনিয়মের কারনে তাদের বিরুদ্ধে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। ৫জন বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্ব মোট ৯টি মামলায় এসকল দন্ড প্রদান করা হয়। তিনি বলেন এ অভিযান চলমান থাকবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ