• শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৬:৫৫ পূর্বাহ্ন

 নৌকায় ভোট দেয়ার অপরাধে আ’লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মীকে হত্যা করেছে বিএনপি- সুজিত রায়

স্বাধীন ভোর ডেস্ক / ৬২ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশের সময় শনিবার, ১৯ আগস্ট, ২০২৩

সোহাগ মিয়াজী
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী বলেছেন, ‘শেখ হাসিনার আলোকিত বাংলাদেশকে অন্ধকারে নিমজ্জিত করার ষড়যন্ত্র চলছে। যারা একাত্তরে স্বাধীনতার সময় বলেছিল-বাংলাদেশ তলাবিহীন ঝুড়ি। তারাই আজ সে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, ২০০১ সালে নৌকায় ভোট দেয়ার অপরাধে আ’লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছে। পূর্ণিমা রানীসহ অসংখ্য নারীকে ধর্ষণ করা হয়েছে। ২০০৪ সালের ২১ আগষ্টে শেখ হাসিনাকে হত্যার লক্ষ্যে জামায়াত-বিএনপি রাষ্ট্রীয় ষড়যন্ত্র করে এ গ্রেনেড হামলা চালিয়েছে। তার নির্দেশদাতা ছিলেন তারেক রহমান। ২০১৩ সালে জামায়াত-বিএনপি আন্দোলনের নামে নিরীহ মানুষকে অগ্নি সন্ত্রাস করে হত্যা করেছে। তারা সে অগ্নিসন্ত্রাসের রাজনীতি আবার শুরু করেছে। শেখ হাসিনা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় না থাকলে বাংলাদেশ অন্ধকারে নিমজ্জিত হবে। সুজিত রায় আরো বলেন, আ’লীগের প্রাণশক্তি হচ্ছে তৃণমূল। তৃণমুল অভিমানী হয়, বেঈমান নয়। তিনি নেতাকর্মীদেরকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, আগামী নির্বাচন বানচাল করার জন্য ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। সংবিধান অনুযায়ী শেখ হাসিনার অধীনেই আগামী নির্বাচনে সকল নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করবে। নির্বাচন হবে অবাধ ও নিরপেক্ষ। শনিবার (১৯আগস্ট)বিকালে উপজেলার মুন্সিরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ে মাঠে মুন্সিরহাট ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে দেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বাবু সুজিত রায় নন্দী। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখেন সাবেক রেলমন্ত্রীর ও কুমিল্লা দক্ষিন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মুজিবুল হক এমপি। মুন্সিরহাট ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী আবুল কাশেমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুস সোবহান ভূইয়া, পৌর মেয়র জি এম মীর হোসেন মীরু, কুমিল্লা দক্ষিন জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য প্রকৌশলী ওয়াহিদুর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ রহমত উল্লাহ বাবুল, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য কামাল উদ্দিন, কেন্দ্রীয় সেচ্ছাসেবকলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য আবু তাহের, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এবি এম বাহার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আক্তার হোসেন পাটোয়ারী, মফিজুর রহমান, জেলা পরিষদ সদস্য এমরানুল হক কামাল, মুন্সিরহাট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মাহফুজ আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক নন্দন চৌধুরী, জাকির হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, কামরুল হাসান মুরাদ, কামরুল আলম মোল্লা, উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক খোরমেদ আলম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক জি এম জাহিদ হোসেন টিপু, উপজেলা যুবলীগ যুগ্ন আহবায়ক সৈয়দ আহমদ খোকন, কালিকাপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ভিপি মাহবুব মজুমদার, কাশিনগর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন, শুভপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান মজুমদার,বাতিসা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম ফরহাদ, উজিরপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নাইমুল রহমান, কনকাপৈত ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল, ঘোলপাশা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান একে খোকন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন পাটোয়ারী, উপজেলা যুবলীগ নেতা এনাম পাটোয়ারী, উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন সর্দার, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আরশ মজুমদার, দক্ষিন জেলা যুবলীগের সদস্য মহসিন আহম্মেদ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তৌফিকুল ইসলাম সবুজ, সাধারণ সম্পাদক কাউছার হানিফ, নারী নেত্রী তাহমিনা আক্তার, ঘোলপাশা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মাসুম বিল্লাহ, দক্ষিন জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সদস্য আলী আক্কাস, উপজেলা যুবলীগের সদস্য মিজানুর রহমান, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আলাউদ্দিন মজুমদার ও সম্পাদক ইমাম হোসেন, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুদ রানা, মুন্সিরহাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আরমান হোসেন প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ