• শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৭:৪১ পূর্বাহ্ন

জামালপুরে মহিলা এমপিকে লাঞ্ছিতের অভিযোগ

স্বাধীন ভোর ডেস্ক / ১৬৭ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশের সময় শুক্রবার, ১৮ আগস্ট, ২০২৩

মাহমুদুল হাসান মুক্তা ,জামালপুর 
জামালপুরের ইসলামপুরে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় স্থানীয় এক নেতার হাতে লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন জামালপুর-শেরপুরের সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি হোসনে আরা। ধর্মপ্রতিমন্ত্রীর উপস্থিতিতে তিনি লাঞ্ছনার শিকার হলেও এ বিষয়ে মন্ত্রী কোনো পদক্ষেপ নেননি বলেও অভিযোগ করেন তিনি। অভিযুক্ত ওই নেতার নাম আনোয়ার হোসেন। তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক। শুক্রবার (১৮ আগস্ট) সকালে  এমপি হোসনে আরা এই অভিযোগ করেন। এর আগে বৃহস্পতিবার (১৭ আগস্ট) রাত ৯টার দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে বলেও তিনি জানান। তখন ২০০৫ সালের ১৭ আগস্টের সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদের অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা চলছিল। অভিযোগে হোসনে আরা এমপি বলেন, ‘আমি বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত সিরিজ বোমা হামলা দিবসের আলোচনা সভায় যাই। প্রসঙ্গক্রমে অনুষ্ঠানে আমাকে দাওয়াত না দেওয়ার ব্যাপারে আয়োজকদের কাছে জানতে চাই এবং অনুষ্ঠানের নানা ত্রুটি নিয়ে কথা বলি। এ সময় উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন উত্তেজিত হয়ে তর্কবির্তক শুরু করেন। তিনি আমাকে মানহানিকর কথা বলেন। একপর্যায়ে তিনি আমাকে লাঞ্ছিত করেন। তিনি আরো বলেন, ‘ইসলামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের কোনো অনুষ্ঠানে আমি দাওয়াত পাইনা। তবু দলের প্রতি ভালোবাসা থেকেই সব অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার চেষ্টা করি। আমাকে যখন লাঞ্ছিত করেছেন তখন ধর্মপ্রতিমন্ত্রী মহোদয় উপস্থিত ছিলেন। তিনি এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নেননি। উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র আব্দুল কাদের শেখ বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সভায় একজন মাননীয় এমপির গায়ে হাত তোলার ঘটনার কথা শুনেছি। যিনি এ কাজ করেছেন, খুব খারাপ কাজ করেছেন। আমি এ ঘটনার নিন্দা জানাই। অভিযোগটি মিথ্যা দাবি করে অভিযুক্ত আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘এমপি হোসনে আরা মহোদয়ের সাথে আমি কোনো খারাপ আচরণ করিনি। তিনিই আমার সাথে খারাপ আচরণ করেছেন। এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল বলেন, ‘মাননীয় হোসনে আরা এমপির অভিযোগটি মিথ্যা। ওই সভায় আমি উপস্থিত ছিলাম। তাঁকে আমার পাশের চেয়ারে বসিয়ে সভার কার্যক্রম শেষ করেছি। উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন মাননীয় এমপির সাথে কোনো খারাপ আচরণ করেছেন বলে তো আমি দেখিনি। এ ঘটনায় উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। একই সঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জামালপুর-শেরপুর আসনের সংরক্ষিত সাংসদ হোসনে আরার অনুসারীরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ