এবারের এসএসসি পরীক্ষার সব সূচকেই খারাপ করেছে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে

স্বাধীন ভোর ডেস্ক / ৮৪ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশের সময় শনিবার, ২৯ জুলাই, ২০২৩

নেকবর হোসেন
কুমিল্লা প্রতিনিধি:
কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের এবারের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলে সব সূচকেই খারাপ করেছে শিক্ষার্থীরা। পাসের হার, জিপিএ-৫, শতভাগ পাস করা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বিভাগভিত্তিক ফল—সব ক্ষেত্রেই পিছিয়ে এই বোর্ড। চার বছরের মধ্যে এবারই প্রথম পাসের হার ৮০ শতাংশের নিচে নেমেছে। শুক্রবার সকালে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. আসাদুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত ফলাফলে উল্লেখ করা হয়, কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ছয় জেলার ১ হাজার ৭৭৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে ১ লাখ ৮২ হাজার ৬৩৫ জন এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। এর মধ্যে ১ লাখ ৪৩ হাজার ২১৬ জন উত্তীর্ণ হয়। পাসের হার ৭৮ শমিক ৪২। ছেলেরে পাসের হার ৭৮ শমিক ৭৯, মেয়েরে পাসের হার ৭৮ দশমিক ১৪। শতভাগ পাস করা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৭৯। কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. জামাল নাছের বলেন, সুশৃঙ্খলভাবে এবার পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), শিক্ষা কর্মকর্তাসহ পরীক্ষার ব্যবস্থাপনার সঙ্গে জড়িতদের নজরদারির কারণে এবার ভালো পরীক্ষা হয়েছে। তবে সব ব্যাচে একই ধরনের শিক্ষার্থী থাকে না। তা ছাড়া এবার পূর্ণাঙ্গ সিলেবাসে পরীক্ষা হওয়ায় পাসের হার ও জিপিএ-৫ কমেছে। এবারের এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে ১১ হাজার ৬২৩ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ছেলে ৪ হাজার ৭০৫ ও মেয়ে ৬ হাজার ৯১৮ জন। বিভাগওয়ারি ফলাফল বিশ্লেষণে দেখা গেছে, এবার বিজ্ঞান বিভাগে পাসের হার সবচেয়ে বেশি, ৯৫ শমিক ৮৪। অন্যদিকে মানবিকে পাসের হার ৬১ শমিক ৮৪। আর ব্যবসায় শিক্ষায় ৭৯ দশমিক ১১। মানবিক বিভাগে পাসের হার কমায় সার্বিকভাবে এ বোর্ডে পাসের হার কমেছে। কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. আসাদুজ্জামান জানান, গত বছর আংশিক সিলেবাসে পরীক্ষা হয়েছিল, উত্তর দেয়ার অনেক বেশি প্রশ্নের অপশন থাকায় গত বছর ফলাফলের হার ছিল বেশি।এ বছর সব বিষয়ে ও পূর্ণ মানবণ্টনে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ায় এবং মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা গণিত ও ইংরেজি বিষয়ে খারাপ করায় ফলাফল খারাপ হয়েছে। এ বছর পরীক্ষায় ভিন্নতা থাকায় পাশের হারে প্রভাব পড়েছে। কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, এবার গতবারের তুলনায় পাসের হার ও জিপিএ-৫ কমেছে। এবার পাসের হার ৭৮ শমিক ৪২ শতাংশ হলেও গতবার ছিল ৯১ শমিক ২৮। গত বছর জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১৯ হাজার ৯৯৮ জন, যা চলতি বছরের তুলনায় ৮ হাজার ৩৭৫ জন বেশি। এ ছাড়া এবার শতভাগ পাস করা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যা কমেছে ১৩২। সর্বশেষ ২০১৮ সালে পাসের হার ছিল ৬৫ দশমিক ৪২। চার বছর পর এবারই প্রথম ৮০ শতাংশের নিচে নামল পাসের হার। জেলাভিত্তিক ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, চাঁদপুর জেলায় পাসের হার সবচেয়ে বেশি, ৮৫ দশমিক ২১। তবে জিপিএ-৫ বেশি কুমিল্লা জেলায়, ৪ হাজার ৯৭৬ জন। শতভাগ পাস করা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কুমিল্লায় ৩৫টি। নোয়াখালী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পাসের হার ৭০ শতাংশ হওয়ায় সার্বিকভাবে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের ফলাফলের ওপর বিরূপ প্রভাব পড়েছে। কুমিল্লা জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক আবদুল হাফিজ বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে পুরো সিলেবাস শিক্ষার্থীরা আয়ত্ত করতে পারেনি। যে কারণে জিপিএ-৫ একটু কমেছে। তবে সার্বিক ফলাফলে তিনি সন্তুষ্ট।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ