• বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ১০:১৬ অপরাহ্ন

যশোরে বৃদ্ধ মা-বাবার ঠাঁই হলো মসজিদে

স্বাধীন ভোর ডেস্ক / ২২ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশের সময় মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই, ২০২৩

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি:
প্রায় তিন বছর তারা মেয়ে-জামাতার বাড়িতে থেকেছেন মা বাবা। অথচ বাড়ির নাম ‘মা-বাবার দোয়া’। কিন্তু সেই বাড়িতে ঠাঁই হয়নি বৃদ্ধ মা-বাবার। এরপর ঠাঁই নেন নিজেদের গ্রামের মসজিদে। গত সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওই মা-বাবাকে বাড়িতে তুলে দিয়েছেন। যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামে এঘটনা ঘটে। জানা যায়, যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার নির্বাসখোলা ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের আব্দুল জলিল (৭০) ও রোজিনা বেগম (৬০)। তারা এক পুত্র ও দুই কন্যা সন্তানের জনক-জননী। একমাত্র ছেলে পল্লী চিকিৎসক নাসির উদ্দীনের নির্যাতনের শিকার হয়ে বাড়ি ছেড়ে মেয়ে বাড়িতে চলে যায় তারা। সম্প্রতি তারা গ্রামে এসে নিজ বাড়িতে উঠতে না পেরে এক প্রতিবেশীর বাড়িতে আশ্রয় নেয়। প্রতিবেশির বাড়ি থেকে রোববার বিকালে আব্দুল জলিল ও তার স্ত্রী রোজিনা বেগম নিশ্চিন্তপুর গ্রামের জামে মসজিদে অবস্থান নেয়। ফলে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়ে গ্রামবাসী ও মসজিদের মুসাল্লিরা। ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাহাবুবুল হক তাদেরকে ছেলের বাড়িতে তুলে দেন। অভিযোগের বিষয়ে নাসির উদ্দীন বলেন, ‘জমি নিয়ে দ্বন্দ্বে বাবা ও বোনেরা আমার নামে ১৮টি মামলা করেছেন, আমিও তাঁদের বিরুদ্ধে পাঁচটি মামলা করেছি। আমি মা-বাবাকে বাড়িতে থাকতে দেব কিন্তু বোনদেরকে বাড়িতে জায়গা দেব না। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মো. মাহাবুবুল হক জানান, দু’জন মুরুব্বি মানুষ মসজিদে অবস্থান করছে। বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থলে যায় এবং তাদেরকে তার বাড়িতে দিয়ে এসেছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ