• শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ১২:০৭ পূর্বাহ্ন

ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা

স্বাধীন ভোর ডেস্ক / ৮০ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশের সময় সোমবার, ১৭ জুলাই, ২০২৩

ঢাকা-১৭ আসন উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। এখন চলছে ভোট গণনা। সোমবার (১৭ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে ব্যালট পেপারের মাধ্যমে বিকাল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। তবে ভোটার উপস্থিতি ছিল কম। উপ নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচনি এলাকায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছিল জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। সিসিটিভির মাধ্যমে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করছে নির্বাচন কমিশন। সংস্থাটির দাবি, নির্বাচনের পরিবেশ ভালো ছিল।

এদিকে এ উপনির্বাচনের পাশাপাশি সোমবার দেশের বেশ কয়েকটি জায়গায় স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সকাল থেকে এই নির্বাচনি এলাকার বিভিন্ন অংশে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি হয়েছে। এরফলে ভোটারের উপস্থিতিও ছিল বেশ কম। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে উপস্থিতি কিছুটা বাড়ে, যদিও তা সন্তোষজনক নয়। ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার কারণ তুলে ধরে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মোহাম্মদ এ আরাফাত বলেন, মূলত অল্প সময়ের জন্য এই নির্বাচন হওয়ায় নির্বাচন নিয়ে ভোটারদের আগ্রহ কম।

ঢাকা-১৭ আসনের উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রয়েছেন আট জন। তবে দেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপি এই নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে না। মোহম্মদ এ আরাফাত ছাড়াও দলীয় প্রার্থীরা হচ্ছেন, জাতীয় পার্টির সিকদার আনিসুর রহমান, জাকের পার্টির কাজী মো. রাশিদুল হাসান, তৃণমূল বিএনপির শেখ হাবিবুর রহমান, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. রেজাউল ইসলাম স্বপন ও বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তি জোটের মো. আকবর হোসেন। আর স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন আলোচিত কনটেন্ট ক্রিয়েটর মো. আশরাফুল আলম (হিরো আলম) এবং মো. তারিকুল ইসলাম।

প্রার্থীদের মধ্যে প্রচারণায় বেশি তৎপর ছিলেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মোহম্মদ আলী আরাফাত, একতারা প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী হিরো আলম ও জাতীয় পার্টির লাঙল প্রতীকের সিকদার আনিসুর রহমান।

ঢাকা-১৭ আসনে নির্বাচনের পরিবেশ ভালো বলে দাবি করেছেন নির্বাচন কমিশনার বেগম রাশেদা ‍সুলতানা। তবে ভোটার উপস্থিতি কম বলেও জানান তিনি। সংসদের মেয়াদের শেষ দিকে ভোট হওয়ার কারণে জনগণের আগ্রহ কম বলে তিনি ধারণা করেন। তিনি জানান, ভোটার কম হওয়ার আসল কারণ পরে জানা যাবে।

সোমবার (১৭ জুলাই) ভোট শুরুর পর ঢাকা-১৭ আসনের একটি কেন্দ্র পরিদর্শন ও নির্বাচন ভবনে সিসিটিভিতে ভোট পর্যবেক্ষণের একপর্যায়ে তিনি সাংবাদিকদের কাছে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

বর্তমান নির্বাচন কমিশন তার মেয়াদে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদের উপনির্বাচনগুলো ইভিএমে করলেও ঢাকা-১৭ আসনের উপনির্বাচন হলো ব্যালটে। তবে প্রতিটি ভোটকেন্দ্রের ভোটকক্ষগুলোতে সিসি ক্যামেরা ছিল। ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট এলাকা ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের ১৫, ১৮, ১৯ ও ২০ নম্বর ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত এ আসনের ভোটার ৩ লাখ ২৫ হাজার ২০৫ জন। এরমধ্যে নারী ভোটার ১ লাখ ৫৩ হাজার ৫৮০। ১২৪টি ভোটকেন্দ্রের ৬০৫টি ভোটকক্ষে ভোট গ্রহণ করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ