• বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ১১:৪১ অপরাহ্ন

চৌদ্দগ্রামে প্রবাসীর স্ত্রী ও পুত্রকে কুপিয়ে হত্যা, আটক ২

স্বাধীন ভোর ডেস্ক / ২৯৩ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশের সময় বুধবার, ৫ জুলাই, ২০২৩

চৌদ্দগ্রাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে এক প্রবাসীর ঘুমন্ত স্ত্রী ও পুত্রকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার দিবাগত রাত আড়াইটায় উপজেলা সদরের পাঁচড়া বেপারী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন; নিপা আক্তার(২৭) ও তার শিশুপুত্র আলী আহসান মুজাহিদ(৮)। নিপা আক্তারের স্বামী আনোয়ার হোসেন ডুবাই প্রবাসী। পুলিশ দুইজনের লাশ উদ্ধার শেষে থানায় নিয়েছে। আজ সকালে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা। পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাবাদের জন্য মঈনুল হাসান শুভ এবং আবদুল্লাহ আল শাহেদ নামে ২ ভাইকে আটক করেছে। নিহত নিপা আক্তারের পিতা জালাল আহমেদের অভিযোগ, তার মেয়ের জামাই আনোয়ার হোসেনের ভাইয়ের ছেলে মঈনুল হাসান শুভ(২২) এ হত্যাকান্ড ঘটিয়ে থাকতে পারেন। তিনি জানান, মঙ্গলবার রাত ৯টায় নিপা আক্তার তাঁর ছেলে আলী আহসান মুজাহিদকে নিয়ে পার্শ্ববর্তী মামা শ্বশুর আজিজুল ইসলামের বাড়িতে দাওয়াত খেতে যায়। ধারণা করা হচ্ছে, এ সুযোগে হত্যাকারী ঘরের ভিতর প্রবেশ করে নির্মানাধীন টয়লেটে লুকিয়েছিল। রাতে ঘরে ফিরে নিপা ছেলেকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়লে আনুমানিক আড়াইটার সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তাদের গুরুতর জখম করে। এ সময় চিৎকার শুনে লোকজন ছুটে এসে মুজাহিদ ও তার মা নিপা আক্তারকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার শেষে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত ডাক্তার নিপাকে মৃত ঘোষনা করেন এবং আশঙ্কাজনক অবস্থায় আলী আহসান মুজাহিদকে ঢাকা নেয়ার পথে মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতদের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, মা-ছেলেকে কুপিয়ে হত্যার খবর পেয়ে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ মীর হোসেনের ছেলে মঈনুল হাসান শুভ এবং তার ভাই আবদুল্লাহ আল শাহেদ নামের ২ জনকে আটক করেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ